মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১



 চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: আকবর হোসেন

Shares: 1511

আপডেট: ২০২০-০৫-৩০





চট্টগ্রামের কোন এলাকায় কতো জন করোনায় আক্রান্ত

চট্টগ্রামের কোন এলাকায় কতো জন করোনায় আক্রান্ত ফাইল ছবি।

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় ২৭ জন পুলিশ ও বিশেষায়িত বাহিনীর সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনাভাইরাসের জীবাণু মিলেছে ১১ জন চিকিৎসকের মধ্যেও। চট্টগ্রামের এস আলম গ্রুপের আরও এক নারী সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সবমিলিয়ে চট্টগ্রামে শুক্রবার (২৯ মে) করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেন আরও ১৫৯ জন। এর মধ্যে নগরের বাসিন্দা ১১৫ জন ও ৪৪ জন বিভিন্ন উপজেলার। চট্টগ্রামের প্রধান করোনা পরীক্ষাগার বিআইটিয়াইডিতে শুক্রবার অন্য তিনটি ল্যাবে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৮৯টি।

এর মধ্যে চমেক ল্যাবে সর্বাধিক ২৩১ নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হওয়া ৯৭ জন পজিটিভ রোগীর মধ্যে ৯৩ জন নগরের বাকি ৪ জন বিভিন্ন উপজেলার। সিভাসুতে ১৪১ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬১ জন করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ২২ জন নগরের ৩৯ জন বিভিন্ন উপজেলার। অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৭টি নমুনা পরীক্ষায় লোহাগাড়ার ১ জন করোনা পজিটিভ শনাক্তের খবর জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

উপজেলাগুলোর মধ্যে পটিয়া ও চন্দনাইশে সর্বোচ্চ ১৩ জন করে, সীতাকুণ্ড উপজেলায় ৮ জন, বোয়ালখালীতে ৫ জন এবং আনোয়ারা, রাউজান উত্তর সর্তা, হাটহাজারীর ধলই, সন্দ্বীপের মুছাপুরে একজন করে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন শুক্রবার।

সবমিলিয়ে চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৫৮৮ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২০৫ জন এবং মৃত্যু ঘটেছে ৭২ জনের।

শুক্রবার রাতে আসা রিপোর্টে করোনাভাইরাসের জীবাণু শনাক্ত হল কোতোয়ালী এলাকায় ৬৩ বছর বয়সী এক পুরুষ ও ৫২ বছরের এক মহিলা এবং অজ্ঞাতবয়সী এক পুরুষ, কোতোয়ালীর সেকানদিঘির পাড় এলাকায় ৬০ বছর বয়সী এক পুরুষ, দেওয়ানবাজারে ২২ বছর বয়সী এক তরুণ ও ৪৮ বছর বয়সী এক মহিলাঘাটফরহাদবেগে ৪৫ বছর বয়সী এক পুরুষ ও ৩১ বছর বয়সী এক মহিলা, আন্দরকিল্লায় ৩৩ ও ৩৫ বছর বয়সী দুজন পুরুষ, চকবাজারে ২৮ ও ৪০ বছর বয়সী দুজন পুরুষ এবং ১৫ বছর বয়সী এক কিশোর, চকবাজার রসুলবাগে একই পরিবারের ৪২ বছর বয়সী এক নারী এবং ২০ ও ৫৭ বছর বয়সী পুরুষ, চকবাজারে অজ্ঞাতবয়সী এক পুরুষ, চকবাজার মুন্সিপুকুর পাড়ে ৫০ বছর বয়সী মহিলা, পাঁচলাইশের ৩৩, ৩৫, ৩৯ ও ৫২ বছর বয়সী চারজন পুরুষের শরীরে।

করোনায় আক্রান্ত হলেন পতেঙ্গায় ২৬ ও ৩২ বছর বয়সী এক পুরুষ ও ৫৫ বছর বয়সী এক মহিলা, পোর্ট কলোনিতে ৫৫ বছর বয়সী এক পুরুষ, বন্দরটিলায় ৪৩ বছর বয়সী এক পুরুষ, চট্টগ্রাম ইপিজেডে ৩৫ বছর বয়সী এক পুরুষ, বন্দর পোস্ট অফিস এলাকায় ৩০ বছর বয়সী এক মহিলা, বন্দর এলাকায় ৩০ ও ৪২ বছর বয়সী দুই পুরুষ, কোল্ড স্টোর এলাকায় ২৩ বছর বয়সী এক পুরুষ, হালিশহর সবুজবাগে ৫০ বছর বয়সী এক পুরুষ, হালিশহরে ৩৮, ৬৫ বছর বয়সী দুজন পুরুষ এবং ২৬ বছর বয়সী এক তরুণী।

নমুনা পরীক্ষায় আরও পজিটিভ শনাক্ত হলেন আগ্রাবাদে ৩৫ ও ৫০ বছর বয়সী এক নারী এবং ৭০ বছর বয়সী এক পুরুষ, আগ্রাবাদ মিস্ত্রিপাড়ায় ৩৫ বছর বয়সী এক পুরুষ, পশ্চিম ধনিয়ালাপাড়ার ৪৭ বছর বয়সী এক পুরুষ, পাঠানটুলীতে ২৭ ও ৬২ বছর বয়সী দুই পুরুষ, মাদারবাড়িতে ৫৬ বছর বয়সী পুরুষ ও ৪১ বছর বয়সী এক মহিলা, পাহাড়তলীতে ৩৭ বছর বয়সী এক পুরুষ এবং পাহাড়তলী সিডিএ এলাকার ৪২ বছর বয়সী এক নারী, আকবরশাহ এলাকায় ৫৮ ও ৬৫ বছর বয়সী দুই পুরুষ, হিলভিউ আবাসিক এলাকায় ৩৪, ৫৭ ও ৪০ বছর বয়সী তিনজন মহিলা, অক্সিজেনে ৫৫ বছর বয়সী এক নারী, বিল্লাপাড়ায় ২২ বছর বয়সী এক তরুণী।

করোনার জীবাণু মিললো খুলশীতে ৫৫ বছর বয়সী এক মহিলা, উত্তর খুলশীতে ৫২ বছর বয়সী এক মহিলা, কাজির দেউড়িতে ৪২ বছর বয়সী এক পুরুষ, মুরাদপুরে ৬৫ বছর বয়সী এক পুরুষ, চান্দগাঁওয়ে ৩৫ ও ৩৬ বছর বয়সী পুরুষ ও ৩৫ বছর বয়সী এক মহিলা, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকায় ২৭ বছর বয়সী এক মহিলা, চান্দগাঁওয়ের মোহরা এলাকায় ৩৩, বহদ্দারহাটে ২৮ বছর বয়সী এক পুরুষের দেহে।

এছাড়া ফৌজদারহাটের বিশেষায়িত হাসপাতাল বিআইটিআইডিতে চিকিৎসাধীন অথবা কর্মরত— এমন পাঁচজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ ও ৮ বছর বয়সী দুই শিশু, অন্যদের মধ্যে রয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী এক নারী, ৩২ ও ৩৮ বছর বয়সী দুই পুরুষ। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৪৪ বছর বয়সী এক পুরুষের মধ্যেও করোনার জীবাণু মিলেছে।