রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১



 অনলাইন ডেস্ক

Shares: 138

আপডেট: ২০২১-০১-০৯





চলে গেলেন সত্য পল

চলে গেলেন সত্য পল

ভারতের বর্ষীয়ান ফ্যাশন ডিজাইনার সত্য পল পৃথিবীর মায়া কাটিয়েছেন। ৭ জানুয়ারি, ৭৮ বছর বয়সী এই ডিজাইনার শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি পার্থিব সৃজন জগৎ থেকে নিজেকে অনেক আগেই মুক্ত করে আত্মিক উদযাপনে ব্যাপৃত রেখেছিলেন। তাঁর লেবেল সত্য পলের সৃষ্টিযজ্ঞ বর্তমানে সামলাচ্ছেন ভারতের আরেক স্বনামখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার রাজেশ প্রতাশ সিং।তাঁর মৃত্যুর খবর নিজের ফেসবুক পেজে জানিয়ে তাঁর ছেলে পুনীত নন্দ লিখেছেন, গত ২ ডিসেম্বর তাঁর স্ট্রোক হয়েছিল। এরপর সুস্থ হয়ে উঠছিলেন খুব ধীরে। তবে জীবনের সবকিছু থেকে নিজেকে মুক্ত করে নিতে চাইছিলেন। এরপর চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা তাঁকে নিয়ে আসি তাঁর প্রতিষ্ঠিত যোগকেন্দ্র ইশা ফাউন্ডেশনে। এই কেন্দ্র ২০১৫ সাল থেকেই ছিল তাঁর আবাস। সেখানেই মহাকালের অংশ হয়ে যান। ঘুমিয়ে পড়েন চিরতরে।ভারতভাগের ৫ বছর আগে ১৯৪২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি তাঁর জন্ম পশ্চিম পাঞ্জাবের লেইয়ায়। এরপর দেশভাগের কারণে নিঃস্ব অবস্থায় তাঁর পরিবার চলে আসে ভারতে। তাঁর বেড়ে ওঠা নানা চড়াই আর উতরাই পেরিয়ে। কিন্তু ভারতবর্ষ আর এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যই তাঁকে নানাভাবে প্রভাবিত করে তাঁর পরবর্তী জীবনের সৃষ্টিযজ্ঞে। যদিও তিনি জীবন শুরু করেছিলেন কাপড়ের ব্যবসা দিয়ে। সেটা ষাটের দশকের শেষ দিকে। পরে তিনি ইউরোপ আর আমেরিকায় কাপড় রপ্তানিও শুরু করেন।

ফ্যাশন ডিজাইনে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকা সত্ত্বেও কাপড়ের প্রতি অপার টানই তাঁকে কাপড় নিয়ে সৃজনে প্রাণিত করে। তাঁর আকর্ষণের কেন্দ্রে ছিল শাড়ি। এই বিস্ময় পোশাককে তিনি নানা নিরীক্ষায় অন্যতম মাত্রা দিয়েছেন। ১৯৮০ সালে দিল্লিতে খোলেন শাড়ি বুটিক লা’অ্যাফেয়ার। ১৯৮৬ সালে তিনি লঞ্চ করেন নিজের লেবেল সত্য পল। উজ্জ্বল রং, জ্যামিতিক প্যাটার্ন, ফুলেল নকশা আর মুগা, তসর, সিল্ক, শিফন, ক্রেপ প্রভৃতি ম্যাটেরিয়ালের ব্যবহারে শাড়ির শিলুয়েটে আনেন বিশেষ পরিবর্তন।
এমনকি শাড়ির প্রতি ক্রমেই বিমুখ হয়ে পড়া ভারতীয় ললনাদের শাড়িমুখী করতে তিনি নিয়ে আসেন ট্রাউজার শাড়ি।

সত্য পল ভারতীয় ফ্যাশন জগতে হয়ে ওঠেন অবিসংবাদিত ব্যক্তিত্ব। তাঁর শাড়ি পরার জন্য তারকাদের ভিড় লেগেই থাকত। ঐশ্বরিয়া রাই, মন্দিরা বেদী, কারিনা কাপুর, বিদ্যা বালানসহ অনেকেই আছেন এই তালিকায়।তিনি মেয়েদের পোশাকই করতেন, বিশেষত শাড়ি। পাশাপাশি আরও যোগ করেন ড্রেস, কাপ্তান, হ্যান্ডব্যাগ, স্কার্ফ। তবে পুরুষদের এই হতাশা দূর করতে তিনি নিয়ে আসেন টাই আর স্কার্ফ। আবার একসময় এই স্কার্ফ করেন বিখ্যাত পেইন্টার এস এইচ রাজার পেইন্টিং অবলম্বনে। ২০০০ সালে এই প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব নেন তাঁর ছেলে পুনীত নন্দ। কিন্তু ২০১০ সালে উভয়েই প্রতিষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেন।সেই সত্তর দশক থেকেই আধ্যাত্মিকতার পথ খুঁজতে তিনি ক্রমেই অনুরাগী হয়ে পড়েন কে কৃষ্ণমূর্তির। ১৯৭৬ সালে তিনি সন্ন্যাস গ্রহণ করেন এবং শিষ্য হয়ে যান ওশোর। ওশোর মৃত্যুর পর সত্য পল কারও শিষ্যত্ব গ্রহণ না করলেও ২০০৭ সালে সদগুরুর অনুরক্ত হন। খোলেন ইশা যোগকেন্দ্র। আর ২০১৫ সাল থেকে থাকতে শুরু করেন এই কেন্দ্রে। যেখানে তিনি পার্থিব পৃথিবীর সব কোলাহল থেকে নিজেকে মুক্ত করে লীন হয়ে গেলেন অনন্তলোকে। ঠিক যেন রবীন্দ্রনাথের ভাষায়: এক তুমি, তোমা-মাঝে আমি একা নির্ভয়ে ॥তাঁর মহাপ্রস্থানে থেমে গেল সত্য পল নামের উপমহাদেশের অসামান্য এক পোশাকনকশাবিদের অবিস্মরণীয় কীর্তিগাথা। থেকে গেল তাঁর লেবেল সত্য পল। অসংখ্য গুণগ্রাহী আর তাঁর যত বিস্ময়সৃজন। কেবল ভারত নয়, বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকল তাঁর লেবেল, সত্য পলের ব্র্যান্ডস্টোর।



Fatal error: Maximum execution time of 30 seconds exceeded in /home/xpress24/public_html/system/libraries/Session/drivers/Session_files_driver.php on line 265

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Unknown: Cannot call session save handler in a recursive manner

Filename: Unknown

Line Number: 0

Backtrace:

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Unknown: Failed to write session data using user defined save handler. (session.save_path: /var/cpanel/php/sessions/ea-php73)

Filename: Unknown

Line Number: 0

Backtrace: